• ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৮ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট বিভাগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি

Daily Jugabheri
প্রকাশিত নভেম্বর ২৩, ২০২০
মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট বিভাগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট বিভাগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। সোমবার (বিকেল ৩টায়) স্থানীয় সরকার সিলেটের উপপরিচালক (উপসচিব) মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমানের মাধ্যমে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
স্মারকলিপিতে বলা হয়- মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নির্বাচন, মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা নুন্যতম ৩০ হাজার টাকা নির্ধারণ, অনতিবিলম্বে মুক্তিযোদ্ধা ও রাজাকারদের তালিকা সম্পন্ন, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা প্রণয়ন, ৬৯ এর গণঅভ্যূত্থান থেকে ৭১ এর ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে শহীদ ব্যক্তিদের যথাযথ তালিকা প্রণয়ন, ৭১ এর রাজাকার / শান্তি কমিটি সমূহের সন্তানগণসহ মুক্তিযুদ্ধবিরোধী ব্যক্তিগন ভাষাসৈনিক সেজে একুশে পদক ও স্বাধীনতা পদক নিয়ে যাচ্ছে তা রহিতকরণ এবং প্রয়োজনে ফেরত গ্রহণ, আওয়ামীলীগ বা অঙ্গ সংগঠনসমূহে সরকারের বা সরকারের কোন সাবসিডিয়ারী প্রতিষ্ঠানে বা প্রশাসনিক কোন ইউনিটে কোন অবস্থাতেই রাষ্ট্রবিরোধী কোন ব্যক্তি বা পরিবারের সন্তান ভবিষ্যতে যাতে ঢুকতে না পারে তা নিশ্চিতকরণ ও যারা ঢুকেছে তাদের বের দেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ, মুক্তিযোদ্ধাদের রেশন প্রদান, হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুকরণ, গ্যাস ও বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিতকরণ, মুজিব বর্ষ উপলক্ষ্যে সকল মুক্তযোদ্ধাকে গৃহনির্মাণের নিমিত্তে অন্যূন ২০ লক্ষ টাকা সুদমুক্ত ঋণগ্রহণ ব্যবস্থা গ্রহণ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সকল অফিস সমূহের খরচ, কমান্ডারদের যথাযথ সম্মানীর ব্যবস্থা গ্রহণ, সকল মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের সকল সদস্যের বিনাখরচে সকল প্রকার চিকিৎসা নিশ্চিকরণ এবং মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সকল সন্তান ও প্রজন্মদের বিনাখরচে তথা অবৈনিতক সকাল প্রকার শিক্ষার ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ।
স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েল, বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃণাল কান্তি দে, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহিম, বীর মুক্তিযোদ্ধা বিমল চন্দ্র দে, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হান্নান, বীর মুক্তিযোদ্ধা রাকেশ সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হাজী আসক আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা রজনী কান্ত দাস, বীর মুক্তিযোদ্ধা পিরুজ মহন দাস, যুদ্ধাহত বাবুল মিয়া, বুরহান উদ্দিন, সন্তান কমান্ড নেতা মো. সুজন মিয়া, ফারুক মিয়া, আশরাফুল ইসলাম, চান মিয়া, মঈন উদ্দিন, যুব কমান্ড সভাপতি মো. জিল্লুর রহমান, যুব কমান্ড কেন্দ্রীয় সদস্য মনোজ কপালী মিন্টু প্রমুখ। প্রেস-বিজ্ঞপ্তি।

সংবাদটি শেয়ার করুন