• ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৭ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

জামালগঞ্জে চাচাতো ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে স্বামী-স্ত্রী খুন

Daily Jugabheri
প্রকাশিত মে ১১, ২০২১
জামালগঞ্জে চাচাতো ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে স্বামী-স্ত্রী খুন

নিজস্ব সংবাদদাতা, সুনামগঞ্জ :::
সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের পারিবারিক বিরোধের জের ধরে আপন চাচাতো ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছে স্বামী-স্ত্রী। নিহতরা হলেন, আলীপুর গ্রামের তাহের আলীর ছেলে মো. আলমগীর (৩২) ও তার স্ত্রী মোছা. মোরশেদা বেগম (২৮)। আপন চাচাতো ভাই রাসেল মিয়ার ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারিয়েছেন এই দম্পতি।
রবিবার রাত ৯ টার দিকে আলমগীর মিয়ার বসতঘরে এই ঘটনা ঘটে। নিহত আলমগীর দম্পতির ২ টি ছেলে ও ২ টি মেয়ে শিশু রয়েছে। খুনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, জামালগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আলীপুর গ্রামের জনর আলী ও তাহের আলী আপন ভাই। বাড়ির পাশের একটি জায়গা বিক্রি নিয়ে এই দুই ভাইয়ের পরিবারের মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এনিয়ে রবিবার রাত ৮ টার পর জনর আলীর স্ত্রী ও নিহত আলমগীর মিয়ার স্ত্রী মোরশেদার কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে জনর আলীর ছেলে রাসেল মিয়া রাত প্রায় ৯ টায় ছুরি নিয়ে চাচাতো ভাই আলমগীরের উপর হামলা চালায়। এসময় আলমগীর ভাত খাওয়া অবস্থায় ছিল। আলমগীরের উপর এলোপাতারি ছুরিকাঘাত করে রাসেল। আলমগীরকে বাঁচাতে তার স্ত্রী মোরশেদা বেগম এগিয়ে আসলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে রাসেল। তাদের চিৎকার শুনে পরিবারের অন্য সদস্যরা এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করেন। আহত স্বামী-স্ত্রীকে তাৎক্ষণিক উপেজলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুইজনকেই মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে ঘটনার পরপরই ঘাতক চাচাতো ভাই রাসেল মিয়া গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে গেছে।
জামালগঞ্জ থানার ওসি জামালগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন,‘ ছোট শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র এই রাসেল মিয়ার ছুরিকাঘাতে তার আপন চাচাতো ভাই ও ভাবি খুন হয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ নিহত স্বামী-স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এবং নিজেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ঘটনার পরপরই রাসেল গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে গেছে। তাকে ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে। ’

সংবাদটি শেয়ার করুন