• ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৮ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

গোয়াইনঘাটে একই পরিবারের তিনজন খুন, আরেক জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

Daily Jugabheri
প্রকাশিত জুন ১৬, ২০২১
গোয়াইনঘাটে একই পরিবারের তিনজন খুন, আরেক জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

যুগভেরী ডেস্ক ::: সিলেটের গোয়াইনঘাটে একই পরিবারের তিনজনকে জবাই করে ও কুপিয়ে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
গোয়াইনঘাট উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের বিন্নাকান্দি দক্ষিণ পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।
বুধবার সকালে স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ তিনটি উদ্ধার করে ও আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে পাঠায়।
ছবিতে নিহত সকলের মাথায়, গলায় ও পিঠে ধারালো অস্ত্রের কোপ দেখা দেখা গেছে।
নিহতদের মধ্যে একজন নারী ও তার দুই সন্তান রয়েছে। আহত ব্যক্তি ওই নারীর স্বামী বলে জানা গেছে।
নিহতরা হলেন, বিন্নাকান্দি গ্রামের হিফজুর রহমানের স্ত্রী আলিমা বেগম (৩০), তার ছেলে মিজান (১০) ও মেয়ে তানিশা (৩)। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাৎক্ষণিক হিফজুর রহমানকে (৩৫) ওসমানী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
স্থানীয় এলাকার লোকজন ও পুলিশ জানায়, রাতে খাওয়া-দাওয়া শেষে হিফজুর তার স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। বুধবার সকালে হিফজুর রহমান ঘুম থেকে উঠতে দেরি হওয়ায় প্রতিবেশীরা এসে ঘরে তিনজনের জবাই করা ও কুপানো মরদেহ ও হিফজুরকে রক্তাক্ত দেখতে পান। এসময় তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ঝড়ো হয়ে গোয়াইনঘাট থানা পুলিশকে খবর দিলে থানার ওসি মো. আব্দুল আহাদ একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ তিনটি উদ্ধার করেন এবং হিফজুরকে হাসপাতালে পাঠান। হিফজুরের শরীরের বিভিন্ন স্থানে দায়ের কোপ ছিল।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসেন সিলেটের পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম,
গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল আহাদ তিনজন নিহত ও একজন আহতের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বটি দা দিয়ে কুপিয়ে কে বা করা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। ঘটনার কারণ খুঁজে দেখছে পুলিশ।

ছবি ক্যাপশনঃ ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন সিলেটের পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম।

সংবাদটি শেয়ার করুন