• ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ , ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

মবশ্বির হত্যাকান্ড : প্রকৃত হত্যকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে স্মারকলিপি

Daily Jugabheri
প্রকাশিত অক্টোবর ২৪, ২০২১
মবশ্বির হত্যাকান্ড : প্রকৃত হত্যকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে স্মারকলিপি

সিলেটের দক্ষিণ সুরমার সিলাম ইউনিয়নের বিশিষ্ট সমাজসেবী আলহাজ¦ আব্দুল হক মোবাশি^র হত্যা মামলার সুষ্ঠু তদন্ত ও প্রকৃত হত্যকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার নিশারুল আরিফ এর কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন বৃহত্তর সিলামবাসী।

২৪ অক্টোবর রোববার দুপুরে তারা এ স্মারকলিপি দেন। স্মারকলিপিতে তারা উল্লেখ করেন, গত ২৫ সেপ্টেম্বর স্থানীয় নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল সংলগ্ন ধোপাঘাট নামক স্থানে সিলাম শেখপাড়া গ্রামের সালিশ ব্যক্তিত আব্দুল হক মোবাশ্বিরকে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ নিহত মোবাশি^রের মরদেহ পুলিশ উদ্ধার করে। এ সময় শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন দেখা যায় ও বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করে।

ঘটনার পর নিহতের ভাই মুহিবুল হক বাদি হয়ে দক্ষিণ সুরমা থানায় অজ্ঞাতনামা আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ২৪ তারিখ-২৬/০৯/২১ইং। ঘটনার পর দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ বরইকান্দি ইউনিয়নের চান্দাই গ্রামের জনৈক মিলির বাড়িতে থেকে মোছাঃ পান্না বেগম (১৯) নামের এক মেয়েকে আটক করে। পান্না কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট থানার তেলপাই গ্রামের রবিউল আলমের কন্যা।

গ্রেফতারকৃত পান্না জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে সে নিজে একাই মবশ্বিরকে হত্যা করেছে বলে সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ২য় আদালতের বিচারকের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। কিন্তু পান্নার বক্তব্যে অসামঞ্জস্য এবং নানা গড়মিল দেখা দিয়েছে। তাই আমাদের ধারণা, অভিযুক্ত পান্না বেগম এই জবানবন্দির মাধ্যমে তার সহযোগী হত্যাকারীদের বাচাঁনোর চেষ্টা করেছে এবং একটি কল্পকাহিনী সাজিয়েছে। তাছাড়া তাকে রিমান্ডে নেওয়া হয়নি। তাই প্রকৃত রহস্য উদ্ঘাটনে পান্নার মা-বাবা, ভাই, খালা-খালূ ও নানীকে পুলিশী হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য পুলিশ কমিশনারের প্রতি তারা জোড় দাবী জানান।

স্মারকলিপি প্রদানকালে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, প্রবাসী কমিউনিটি নেতা ইব্রাহিম আলী খন্দকার, সিলাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইকরাম হোসেন বখত, আব্দুল কাইয়ুম মাস্টার, মোদাব্বির হোসেন, হাজী তাজরুল ইসলাম তাজুল, মুহিবুল হক, বাহার উদ্দিন, আনা মিয়া, রুহেল খন্দকার, ফজলু মিয়া, মোয়াজ্জেম হোসেন লনি, সিনিয়র সাংবাদিক এম আহমদ আলী, সামছুল হক, ইউপি সদস্য সাদিক মিয়া মেম্বার, মনিরুল ইসলাম তুরন, লুৎফুর রহমান বাবু, আব্দুল হামিদ, টিটু মিয়া, কবির আহমদ রুহেল, আল মামুন, রাজু মিয়া, ইয়াছিন আহমদ ফাহিম, আব্দুস সামাদ, আরিফুল হক রণি, আব্দুল মতিন, জমির মিয়া, মকসুদ আহমদ ইমন, মাহবুবুল হক ইনু, ফাহাদ হাসান, তানভির হোসেন মাহদী, জাহেদ আহমদ প্রমূখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি শেয়ার করুন