• ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১২ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

কানাইঘাটের বিদায়ী উপজেলা প্রকৌশলী রিয়াজ মাহমুদ সংবর্ধিত

Daily Jugabheri
প্রকাশিত নভেম্বর ৯, ২০২১
কানাইঘাটের বিদায়ী উপজেলা প্রকৌশলী রিয়াজ মাহমুদ সংবর্ধিত

কানাইঘাট প্রতিনিধিঃ
কানাইঘাট এলজিইডি কন্ট্রেক্টার ওয়েলফেয়ার এসিসোয়েশন ও উপজেলা প্রকৌশলী অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দ্যোগে উপজেলা প্রকৌশলী একেএম রিয়াজ মাহমুদের অন্যত্র বদলী উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনা ও নবাগত প্রকৌশলী আবু হানিফার বরণ উপলক্ষে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান  মঙ্গলবার বিকাল ৪ টায় এলজিইডি কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

 

 

উপজেলা এলজিইডি কন্ট্রেক্টার এসিসোয়েশনের সভাপতি শ্রী রিংকু চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদের পরিচালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিদায়ী উপজেলা প্রকৌশলী সংবর্ধিত একেএম রিয়াজ মাহমুদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন নবাগত উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আবু হানিফা, দিঘীরপাড় ইউপির চেয়ারম্যান আলী হোসেন কাজল, উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী আবু তাহের, সিলেট জেলা এলজিইডি কন্ট্রেক্টার এসিসোয়েশনের প্রচার সম্পাদক জহিরুল ইসলাম তুহেল, কানাইঘাট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রকৌশলী অফিসের এসওয়াই ফিরোজ রশিদ, একরামুল হক, উপজেলা এলজিইডি কন্ট্রেষ্টার এসিসোয়েশনের সহ-সভাপতি মখদ্দুস আলী, খসরুজ্জামান পারভেজ, জসিম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, কোষাধক্ষ শ্যামল দাস, দপ্তর সম্পাদক মাসুম আহমদ, কন্ট্রেক্টার আইনুল হক। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে কন্ট্রেক্টার এসিসোয়েশনের নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে বলেন, দীর্ঘ দশ বছর বিদায়ী প্রকৌশলী রিয়াজ মাহমুদ কানাইঘাটে অত্যান্ত সফলতার সহিত দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

 

তার দায়িত্বকালীণ সময়ে উপজেলার এলজিইডি’র সকল উন্নয়নমূলক কাজ স্বচ্ছতার সহিত বাস্তবায়ন হয়েছে। কাজ করতে গিয়ে তিনি সব সময় ঠিকাদারদের সহযোগীতা করেছেন যা কখনো ভুলবার মত নয়। বিদায়ী উপজেলা প্রকৌশলী রিয়াজ মাহমুদ বলেন, দীর্ঘ এ দিনে কানাইঘাটের মানুষের সাথে আমার আত্মার সম্পর্ক হয়েছিল যা আমি কখনো ভুলব না। এখানে দশটি বছর কাজ করেছি। কাজ করতে গিয়ে জনপ্রতিনিধি, সরকারী কর্মকর্তা, রাজনৈতিক মহল, সাংবাদিক, এলজিইডি’র কাজের সাথে সম্পৃক্ত ঠিকাদারদের সহযোগীতা পেয়েছি। যার কারনে কানাইঘাটে এলজিইডি’র উন্নয়নমূলক কাজে কখনো বাধাঁর সৃষ্টি হয়নি। দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে কারো মনে কষ্ট দিয়ে থাকলে তা ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ করেন তিনি। অনুষ্টান শেষে কন্ট্রেক্টার এসিসোয়েশনের পক্ষ থেকে বিদায়ী প্রকৌশলী ও নবাগত প্রকৌশলীকে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান সহ নানা উপহার সামগ্রী তুলে দেন এসিসোয়েশনের নেতৃবৃন্দ।

সংবাদটি শেয়ার করুন