• ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

নিখোঁজের তিনদিন পর মিলল ২ কিশোরীর লাশ

Daily Jugabheri
প্রকাশিত নভেম্বর ২১, ২০২১
নিখোঁজের তিনদিন পর মিলল ২ কিশোরীর লাশ

নিজস্ব সংবাদদাতা, ছাতক ও শ্রীমঙ্গল
নিখোঁজের তিন দিন পর দুই কিশোরীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সুনামগঞ্জের ছাতকে নিখোঁজের তিনদিন পর ধানক্ষেত থেকে খুশি আক্তার (১৬) নামের এক কিশোরীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
রোববার (২১নভেম্বর) সকালে উপজেলার কালারুকা ইউনিয়নের গৌরিপুর গ্রাম সংলগ্ন একটি ধানক্ষেত থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। সে গৌরিপুর গ্রামের কবির আহমদ এর মেয়ে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত (১৯-নভেম্বর) থেকে নিখোঁজ রয়েছে মেয়েটি। ঐ দিনই ছাতক থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন মেয়ের বাবা।
ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর ঘটনার আসল রহস্য জানা যাবে।
এদিকে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলায় নিখোঁজের তিনদিন পর নির্জন স্থান রাবার বাগান থেকে কিশোরী মিনা বেগম লাশ উদ্ধার হয়েছে। উদ্ধার হওয়া এই কিশোরী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের মঈনু মিয়ার মেয়ে।
রবিবার দুপুরে উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের দিনারপুর চা বাগান এলাকার রুপাইছড়া রাবার বাগানের ভেতর টিলার পাশ থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়।
শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ জানায়, শুক্রবার বিকেলে থেকে কিশোরী নিখোঁজ ছিল। তবে থানা পুলিশকে এ বিষয়ে অবগত করা হয়নি।
রবিবার দুপুরে উপজেলার মিজাপুর ইউনিয়নের রুপাইছড়া রাবার বাগানের ভেতরে ওই কিশোরীর লাশ দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী থানা পুলিশকে খবর দেয়।খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করে।
কিশোরীর ভাই আবুল হোসেন জানান, আমার বোন স্থানীয় একটি মহিলা মাদ্রাসায় চতুর্থ শ্রেণীতে অধ্যয়ণরত। শুক্রবার বিকালে বাজার করতে স্থানীয় সমশেরগঞ্জ বাজারে যায়। এরপর থেকে সে নিখোঁজ হয়। শনিবার তারা এলাকায় মাইকিংও করেন। রবিবার সকালে রুপাইছড়া রাবার বাগানের টিলার মধ্যে আমার বোনের লাশ পাওয়া যায়।
তিনি জানান, লাশের গলায় উড়না পেছানো ছিলো। পায়ে আঘাতের চিহৃ আছে। পরনে ওপরে কামিজ ছিলো,কিন্তু সেলোয়ার গায়ে ছিলো না।
মৌলভীবাজারের সিনিয়র সহকারী পুলিশ শ্রীমঙ্গল সার্কেল শহীদুল হক মুন্সীর বলেন, কিশোরীর লাশটি ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে কিনা বিষয়টি তদন্ত করে এবং মেডিক্যাল রিপোর্টের পর নিশ্চিত হওয়া যাবে। তবে তদন্ত চলছে শিগগিরই হত্যার কারণ এবং জড়িতদের গ্রেফতার করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন