• ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১১ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

ভারতে বিদ্রোহী ভেবে গ্রামবাসীর ওপর গুলি, নিহত ১৩

Daily Jugabheri
প্রকাশিত ডিসেম্বর ৬, ২০২১
ভারতে বিদ্রোহী ভেবে গ্রামবাসীর ওপর গুলি, নিহত ১৩

যুগভেরী ডেস্ক
ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্য নাগাল্যান্ডে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ১৩ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে সেখানে।
রোববার ভোরে মিয়ানমার সীমান্তবর্তী নাগাল্যান্ডের মন জেলার ওটিংয়ে এ ঘটনা ঘটে। খবর এনডিটিভির
রোববার এক বিবৃতিতে আসাম রাইফেলসের পক্ষ থেকে জানানো হয়, তিরুতে যে ঘটনা ঘটেছে, তার জন্য গভীরভাবে অনুতপ্ত। এ ঘটনায় তদন্ত হচ্ছে। আইন মেনে উপযুক্ত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
এলাকাবাসীর দাবি, বিদ্রোহী ভেবে সাধারণ শ্রমিকদের ওপর গুলি চালানো হয়েছে। যদিও নিরাপত্তা বাহিনীর ওপরে পাল্টা হামলা চালানোরও অভিযোগ উঠেছে। তবে স্থানীয় গ্রামবাসীর দাবি নিহতরা নির্দোষ। প্রতিদিনের মতো তিরু থেকে কাজ শেষে পিকআপ ভ্যানে করে ফিরছিলেন তারা। সেখানে কয়লা ক্ষেত্রে কাজ করতেন তারা।
সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, তিরুর একটি কয়লা ক্ষেত্র থেকে পিকআপ ভ্যানে করে তারা নিজেদের গ্রামে ফিরছিলেন। সেই সময় গাড়ি লক্ষ্য করে নিরাপত্তা বাহিনী গুলি চালায়। পিকআপ ভ্যানে ন্যাশনাল সোশালিস্ট কাউন্সিল অফ নাগাল্যান্ডের (এনএসসিএন) বিদ্রোহীরা ছিল বলে ধারণা করেছিল নিরাপত্তা বাহিনী।
এই ঘটনার প্রতিবাদে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের ঘিরে ফেলে উত্তেজিত জনতা। বেশ কয়েকটি গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেন বিক্ষুব্ধরা। আত্মরক্ষার্থে অভিযানে অংশ নেওয়া আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সদস্যরা আবারও গুলি চালায়। দুই পক্ষের সংঘাতে এক জওয়ান নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় মন জেলায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।
একে দুঃখজনক ঘটনা বলে অ্যাখ্যা দিয়েছেন রাজ্য মুখমন্ত্রী নেফিউ রিও। সাধারণ নাগরিকদের হত্যার ঘটনার তীব্র নিন্দা করলেন নাগাল্যান্ডের মুখ্যমন্ত্রী নেফিউ রিও। সেইসঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। শোকপ্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।
নাগাল্যান্ডের মুখ্যমন্ত্রী টুইটারে বলেন, মনের ওটিঙে যে দুর্ভাগ্যজনক ঘটনায় সাধারণ নাগরিকদের মৃত্যু হয়েছে, তা অত্যন্ত দুঃখজনক। নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি এবং আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি। উচ্চপর্যায়ের বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট) তদন্ত করবে এবং আইন মোতাবেক বিচার পাবেন মানুষ। সবাইকে শান্তি বজায় রাখার আহ্বান জানাচ্ছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন