• ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১১ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

এখনও শেষ হয়নি বাঁধের জরিপ কাজ, গঠন হয়নি প্রকল্প কমিটিও

Daily Jugabheri
প্রকাশিত ডিসেম্বর ১২, ২০২২
এখনও শেষ হয়নি বাঁধের জরিপ কাজ, গঠন হয়নি প্রকল্প কমিটিও

যুগভেরী ডেস্ক ::: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বোরো ফসলরক্ষা বেড়িবাঁধের কাজ আগামী ১৫ ডিসেম্বর শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এখনও হাওরের বাঁধ নির্মাণের জরিপ কাজই শেষ হয়নি। গঠন হয়নি একটিও প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসি)। ফলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বাঁধের কাজ নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে কৃষকদের মধ্যে।

কৃষক ও পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, পানি উন্নয়ন বোর্ড পাউবোর ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার কাজের নীতিমালা অনুযায়ী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে জরিপ কাজ সম্পন্ন করে প্রাক্কলন তৈরি ও গণশুনানির মাধ্যমে পিআইসি কমিটি গঠন করার কথা রয়েছে। তবে এবার এখন পর্যন্ত জরিপ কাজ ও পিআইসি কমিটি গঠন করা হয়নি।

পাউবো সূত্র আরও জানায়, গত বছর ২৮টি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির মাধ্যমে উপজেলার ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার কাজ করা হয়। এবার বন্যায় ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধের ক্ষতি হওয়ায় কমপক্ষে ৫০টি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি গঠনের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে। পাউবোর নীতিমালা অনুয়ায়ী চলতি মাসের ১৫ ডিসেম্বর থেকে কাজ শুরু হয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারি শেষ করার তারিখ নির্ধারণ করা হয়। তবে এখনও শেষ হয়নি হাওরের জরিপ কাজ। পিআইসি কমিটিও গঠন হয়নি। এজন্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ সমাপ্ত নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

হাওর বাঁচাও আন্দোলন জগন্নাথপুর উপজেলা কমিটির আহবায়ক সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘প্রতিবছরই হাওরের বাঁধের কাজ নিয়ে গড়িমসি করা হয়। যে কারণে আগাম বন্যার কবলে ঝুঁকিতে পড়ে ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ। সময়মতো কাজ শুরু না হলে নির্ধারত সময়ের কাজ শেষ হয় না।

‘এখন পর্যন্ত হাওরের বাঁধের জপির কাজ শেষ হয়নি। গঠন হয়নি কোন পিআইসি কমিটি। যা খুবই দুঃখজনক।’

পানি উন্নয়ন বোর্ডের মাঠ কর্মকর্তা হাসান গাজী জানান, যথাসময়ে কাজ শুরু হবে। হাওরে জরিপ কাজ চলমান আছে। প্রাথমিকভাবে হাওরে ৫০টি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি গঠনের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে কাজ চলছে। এরমধ্যেই ৩০টি কমিটি আমাদের কাছে জমা হয়েছে।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাজেদুল ইসলাম বলেন, ‘দ্রুত সময়ের মধ্যে জরিপ কাজ এবং পিআইসি কমিটি গঠন শেষ করে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শুরু করা হবে। আমরা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বেড়িবাঁধের কাজ করব।

সংবাদটি শেয়ার করুন