• ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ওয়ার্ডবাসীর সেবক হিসেবে কাজ করতে চাই : মঈন উদ্দিন

Daily Jugabheri
প্রকাশিত এপ্রিল ২৪, ২০২৩
ওয়ার্ডবাসীর সেবক হিসেবে কাজ করতে চাই : মঈন উদ্দিন

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের গুরুত্বপূর্ণ একটি ওয়ার্ড ২৭ নং ওয়ার্ড। এ ওয়ার্ডের ভেতরে অবস্থিত সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, সিলেট রেঞ্জের ডিআইজির কার্যালয়, বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিস, সেটেলমেন্ট অফিস, পরিবেশ অধিদপ্তর, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিপ্তরের কার্যালয়সহ সকল সরকারি কার্যালয়। এ ওয়ার্ডের ভেতরে রয়েছে বিসিক শিল্প নগরী হিসেবে পরিচিত বড় বড় সকল খাদ্য ও বিভিন্ন পন্য উৎপাদনকারীর মিল কলকারখানা ।

 

বিপুল ঘণবসতি পূর্ণ এ ওয়ার্ডের ভেতরে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের সমস্য। ড্রেনেজ ব্যবস্থার অপ্রতুলতাসহ ওয়ার্ডের বেশ কয়েকটি রাস্তা চলাচলের জন্য অনুপযোগি। বিগত দিনে ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধি হিসেবে পরিবর্তন আসলেও ওয়ার্ডবাসীর ভাগ্য পরিবর্তন আজও হয়নি ।

 

আধুনিকতার ছোঁয়া লাগেনি ওয়ার্ডের গায়ে। এবারের ২১ শে জুনের সিটি নির্বাচনে ২৭ নং ওয়ার্ডের যে কয়জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, তাদের মধ্যে নতুন মুখ হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মঈন উদ্দিন। নির্বাচনে প্রার্থীতা ঘোষনার পরপরই তিনি আলোচনায় রয়েছেন ।

মঈন উদ্দিন সিলেটের সাংবাদিক অঙ্গঁনে ব্যাপক পরিচিত। সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক নির্বাচিত সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালনসহ মঈন উদ্দিন বিসিক শিল্প মালিক সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন ।

২৭ নং ওয়ার্ডের সকল কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে শিক্ষাগত যোগ্যতার দিক দিয়ে এগিয়ে মঈন উদ্দিন। তিনি বিএসএস অনার্সে অধ্যায়নরত অবস্থায় সাংবাদিকতা ও ব্যবসায় যোগদান করেন। সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহনকারী মঈন উদ্দিনের আপন ছোট বোন আয়েশা খাতুন সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ট শিক্ষিকা নির্বাচিত হন। আরেক বোন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা আমিনা খাতুন ।

মঈন উদ্দিনের বড় ভাই সিরাজুল ইসলাম একজন ব্যবসায়ী, তিনি লাল বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ।

গোটাটিকর পূর্বপাড়া,হবিনন্দি,দক্ষিণ কুশিঘাট, আলমপুর,গঙানগর,গোটাটিকর,যুগীশাসন, আচার্য্যপাড়া, বন্দরঘাট,শিববাড়ি, পৈতপাড়া ও কৃষণপুরসহ ২৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা এবারের নির্বাচনে চান নতুন মুখ হিসেবে কেউ কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হোক । আর এ ক্ষেত্রে ভালো অবস্থানে রয়েছেন মঈন উদ্দিন ।

মঈন উদ্দিন জানান, আমি বিগত দিনে অবহেলিত ২৭ নং ওয়ার্ডের উন্নয়নের জন্য সাংবাদিকতা পেশায় থেকে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষনের চেষ্ঠা করেছি, শুধু ২৭ নং ওয়ার্ড নয়, দক্ষিণ সুরমার অনেক অসহায় মানুষকে সহযোগিতার পাশাপাশি সামাজিক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছি, ২৭ নং ওয়ার্ডকে একটি আধুনিক ও বসবাসযোগ্য ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি । নির্বাচনে জয়লাভে আশাবাদী মঈন উদ্দিন আরো বলেন, আমি নির্বাচিত হলে ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের সকল সূযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে যা যা প্রয়োজন তা করতে আমি পিছপা হবো না। সম্মিলিতভাবে ওয়ার্ডের সর্বস্তরের বাসিন্দাদের মতামতকে প্রাধান্য দিয়ে আমি সেবক হিসেবে কাজ করবো ইনশাহআল্লাহ। প্রেস-বিজ্ঞপ্তি।

সংবাদটি শেয়ার করুন