• ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ , ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

আমার মেধা ও শ্রম দিয়ে ওয়ার্ডবাসীর সেবা করে যাবো : লিটন আহমদ

Daily Jugabheri
প্রকাশিত মে ৯, ২০২৩
আমার মেধা ও শ্রম দিয়ে ওয়ার্ডবাসীর সেবা করে যাবো : লিটন আহমদ

লিটন আহমদ। একজন সংগঠক, ক্রীড়া প্রেমী ও সমাজসেবক। কুচাই ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্য মরহুম জফুর মিয়া ও মাতা রাহেলা বেগমের ৫ম সন্তান লিটন আহমদ বরাবরই খেলাধুলার প্রতি আগ্রহ অত্যান্ত বেশি। কুচাই ইছরাব আলী স্কুল এন্ড কলেজের অভিভাবক কমিটির সদস্য লিটন আহমদ কুচাই ইছরাব আলী কিন্ডার গার্ডেনের পরিচালক, তিনি সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সদস্য। বিগত করোনাকালী ও ২০২২ সালের বন্যার সময় তিনি তার পরিবারের পক্ষ থেকে অসহায় মানুষকে সহযোগিতা করেছেন। নবগঠিত সিলেট সিটি কর্পোরেশনের নবগঠিত ৪০ নং ওয়ার্ড। কুচাই, পালপুর, দক্ষিণ কুশিঘাট, ছিটা শ্রীরামপুর, রুগনপুর, সামাল হাসান,মজলিশপুর (আংশিক), গঙ্গানগর, মনিপুর (আংশিক), আলমপুর (আংশিক), ছিটা গোটাটিকর, গঙারামের চক নিয়ে ৪০ নং ওয়ার্ড। ৪০ নং ওয়ার্ডের শুধু কুচাই এলাকা থেকে ৭ জন কাউন্সিলর পদপ্রার্থী লিটনকে সমর্থন জানিয়ে নিজেরা নির্বাচন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার ঘোষনা দিয়েছেন। লিটন আহমদ সেই সব প্রার্থীদের প্রতি জানান সম্মান ও ভালোবাসা। এলাকার বেশিরভাগ ভোটাররা মনে করেন তরুন ও পরিশ্রমি যুবক হিসেবে লিটন আহমদ একজন যোগ্য প্রার্থী । লিটন আগামী ২১ শে জুনের সিটি নির্বাচনে জয়লাভ করলে এলাকার ছোট বড় সকলের মতামতকে প্রাধান্য নিয়ে ওয়ার্ডের উন্নয়ণে অবদান রাখতে চান। তিনি বলেন, আমি নির্বাচিত হলে ৪০ নং ওয়ার্ডের সকল সমস্যা সমাধানে ওয়ার্ডের বাসিন্দা মুরব্বী,যুব-সমাজ ও তরুণ সমাজকে নিয়ে তাদের মতামতের উপর ভিত্তি করে কাজ করে যাবো। আমি চাই শান্তি ও শৃংখলা। শান্তিপ্রিয় কুচাইবাসী আমাকে তাদের মনোনিত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। আমার প্রতি তাদের এই ভালোবাসার ঋণ শোধ করার সাধ্য আমার নেই। মহান সৃষ্টিকর্তার হুকুমে আর ভোটারদের দোয়ায় যদি কাউন্সিলর নির্বাচিত হই, তাহলে আমি আমার মেধা ও শ্রম দিয়ে ওয়ার্ডবাসীর সেবা করে যাবো। প্রেস-বিজ্ঞপ্তি।

সংবাদটি শেয়ার করুন